রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেওয়ায় কুপিয়ে মারাত্মক জখম

গাজীপুরের টঙ্গীতে মাদক বিক্রি করতে বাঁধা দেওয়ায় দীপ্ত (২৫) নামে এক যুবকের হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে স্থানীয় মাদক কারবারিরা। গত ১০ জুন শনিবার দুপুরে টঙ্গী পূর্ব থানাধীন মরকুন পশ্চিম পাড়া এলাকার জনৈক হান্নান মিয়ার মুদি দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় (১৩ জুন) মঙ্গলবার রাতে টঙ্গী পূর্ব থানায় ভুক্তভোগীর মা মোসাঃ কোহিনুর বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর ঘটনার সাথে জড়িত নাঈম নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।গ্রেপ্তারকৃত আসামী নাঈম (২৮) ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানার সুন্দাইল গ্রামের কাঞ্চন মিয়ার ছেলে।
মামলায় অপর আাসামীরা হলেন, টঙ্গী রেলওয়ে বস্তি এলাকার মৃত উজির মিয়ার ছেলে রুবেল (২৮) ও একই এলাকার শুক্কুর আলীর ছেলে বিল্লাহ হোসেন (২৯) মামলা সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ মামলার বাদী কোহিনুর বেগমের বাড়ির পাশে মাদক বেচা কেনা করে আসছে আসামি রুবেল, বিল্লাল, নাঈম সহ বেশ কয়েকজন মাদক কারবারি। বিষয়টি জানতে পেরে তাদের বাঁধা দেয় বাদীর ছেলে দীপ্ত। এবিষয়ে মাদক কারবারিদের সাথে দীপ্তর একাধিকবার কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শনিবার দুপুরে স্থানীয় মুদি দোকানের সামনে দীপ্তকে একা পেয়ে তার উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় মাদক কারবারিরা। এসময় তারা দীপ্তকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। দীপ্তর আত্মচিৎকারে তার মা ও ছোট ভাই এগিয়ে এলে তাদেকেও কুপিয়ে জখম করে মাদক কারবারিরা। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দীপ্তকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। তার অবস্থা সংকটাপন্ন দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রেরণ করেন। এ বিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আশরাফুল ইসলাম জানান, এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে একজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn