মঙ্গলবার - ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মঙ্গলবার - ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার আড়াই বছরের কারাদণ্ড

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় ফটিকছড়ি উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (বরখাস্ত) আজিমেল কদরকে আড়াই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ১৫ জুন বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ মুন্সি আব্দুল মজিদের আদালত এই রায় দেন।
আজিমেল কদর, ঢাকা জেলার দোহার থানার দক্ষিণ জয়পাড়া এলাকার মৃত হাসান আলীর ছেলে।
দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী ছানোয়ার আহমেদ বলেন, দুদকের দায়ের করা মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তা আজিমেল কদরকে ১ বছর ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত । অন্য একটি ধারায় ১ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।
মামলা নথি থেকে জানা যায়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা তাসলিমা আক্তারকে বদলির জন্য ৩০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন আজিমেল কদর। এ ঘটনায় ২০১৯ সালের ২৭ মার্চ তাসলিমা আক্তার দুদক চট্টগ্রাম জেলা অফিসে অভিযোগ করেন। ২০১৯ সালের ২৮ মার্চ দুদক টীম ফাঁদ পেতে ঘুষের টাকাসহ আজিমেল কদর হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। এ ঘটনায় ফটিকছড়ি থানায় দুদকের তৎকালীন উপ-সহকারী পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। দুদক তদন্ত শেষে আদলতে চার্জশিটও দাখিল করে। ২০২০ সালের ১৯ নভেম্বর আদালতে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন। মামলায় মোট নয় জনের সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।
আদালতে বেঞ্চ সহকারী মো.মূসা বলেন, রায়ের সময় আসামি আজিমেল কদর আদালতে উপস্থিত। পরে সাজা পরোয়ানা মূলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn