মঙ্গলবার - ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মঙ্গলবার - ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

বাতৃসাকসো এবং ওয়ার্ল্ড মিডিয়া ক্লাবের উদ্যোগে বিশ্ব গণমাধ্যম দিবস পালিত

“ভবিষ্যতে অধিকার আদায়ের স্বরূপ : মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সব ধরনের মানবাধিকারের চালিকাশক্তি” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ তৃণমূল সাংবাদিক কল্যাণ সোসাইটি এবং ওয়ার্ল্ড মিডিয়া ক্লাবের উদ্যোগে বুধবার ৩ মে সকাল ১০ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সমানে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মানববন্ধন ও আলোচনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন-  বাংলাদেশ তৃণমূল সাংবাদিক কল্যাণ সোসাইটির আহবায়ক মীর মোঃ সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ মহসিন হোসাইন, ওয়ার্ল্ড মিডিয়া ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও এশিয়া ছিন্নমূল মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন এবং তথ্য বাংলা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোঃ দুলাল মিয়া, ওয়ার্ল্ড মিডিয়া ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ দেলোয়ার হোসেন, দৈনিক মুক্তির লড়াই পত্রিকার সম্পাদক কামরুজ্জামান জনি, দৈনিক একুশে বানী পত্রিকার সম্পাদক আশরাফ সরকার, বাংলাদেশ মুক্তি পার্টির মহাসচিব মোঃ নুরুল আবছার, দৈনিক রুদ্রবাংলা পত্রিকার সম্পাদক মতিউর রহমান, ওয়ার্ল্ড মিডিয়া ক্লাবের উপদেষ্টা আশরাফ হোসেন, কনজারভেটিভ পার্টির চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, বাকশালের মহাসচিব কাজী জহিরুল কাইউম, দূর্নীতি সন্ধান পত্রিকার ক্রাইম চীফ রিপোর্টার সিদ্দিকুর রহমান হাওলাদার, অপরাধ দমন পত্রিকার চীফ রিপোর্টার জামাল উদ্দিন, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আন্দোলন এর চেয়ারম্যান এ আর এম জাফুরুল্লাহ চৌধুরী, বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ ফরিদ খান, আজিম টিভি বাংলার ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মোঃ নুরুল ইসলাম, সাংবাদিক সৈয়দ আবদুস সবুর, আলাউদ্দিন আল আজাদ, মোঃ আব্দুর রশিদ লিটন, মোঃ কাইউম হোসেন, মারিয়া আক্তার, তাছলিমা আক্তার, মোঃ কাজল মিয়া, মোঃ সহিদ উল্লাহ, প্রমূখ।
এতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দরা বলেন, সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা। কিন্তু বিভিন্ন কারণে দেশে সাংবাদিকতা করা দুর্বিষহ হয়ে দাড়িঁয়েছে। সংবাদ প্রকাশে কারো স্বার্থে আঘাত লাগলে মিথ্যা মামলা দিয়ে সাংবাদিকদের হয়রানি ও নির্যাতনের ঘটনা প্রায়ই ঘটছে। পাশাপাশি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিকদের হয়রানি করা হচ্ছে। এসময় নেতৃবৃন্দরা সাংবাদিকদের অবসরভাতা, ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন ও সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধের দাবি জানান।
আলোচনা শেষে বিশেষ দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়।
এছাড়াও ফেডারেশন অব বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানাইজেশন, বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার এসোসিয়েশন সহ আরো অনেক সংগঠনের উদ্যোগে দিবসটি পালন করা হয়।
উল্লেখ্য,  ১৯৯১ সালে ইউনেস্কোর ২৬তম সাধারণ অধিবেশনের সুপারিশ মোতাবেক ১৯৯৩ সালে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় (৩ মে) তারিখটিকে ‘ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে’ অথবা বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের স্বীকৃতি দেয়া হয়। সাংবাদিকতার স্বাধীনতা ও মুক্ত গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠার মৌলিক নীতিমালা অনুসরণ, বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের স্বাধীনতার মূল্যায়ন, স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ প্রতিহত করার শপথগ্রহণ এবং পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ক্ষতিগ্রস্ত ও জীবনদানকারী সাংবাদিকদের স্মরণ ও তাদের স্মৃতির প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের লক্ষ্যে সারা বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশেও আজ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনটি পালিত হয়েছে।
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn