রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সকল দলের অংশগ্রহণে অবাধ-সুষ্ঠ-নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে আগ্রহী সরকার

জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ পরিষদ (জানিপপ) চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে নির্বাচন পর্যবেক্ষক ও সমাজের বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় ও ইফতার মাহফিল ৯ এপ্রিল ২০২৩ইং রবিবার বিকাল ৩টায় নগরীর সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সমন্বয়কারী মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জানিপপ’র চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ। সাংবাদিক, কলামিষ্ট এ কে এম আবু ইউসুফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চন্দনাইশ পৌর মেয়র মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম খোকা, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব আবু আহমেদ চৌধুরী জুনু, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের আইনবিষয়ক উপকমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার এসএম কফিল উদ্দিন, অপরাজেয় বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব এইচ রহমান মিলু, চন্দনাইশ সমিতি চট্টগ্রাম এর সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী, চট্টগ্রাম আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট কফিল উদ্দিন, ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ আবদুর রহিম, রাজনীতিবিদ মোহাম্মদ আবু বক্কর, চন্দনাইশ থানা যুবলীগের আহ্বায়ক মো. তৌহিদুল আলম, দৈনিক পূর্বদেশ পত্রিকার সহ-সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. আবু তালেব বেলাল, বাবু তিনকড়ি চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম মহানগর পূজা কমিটির সহ-সভাপতি অরুপ রতন চক্রবর্তী, সিএইচআরসি’র সভাপতি সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন, ন্যাপ মোজাফ্ফর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোহাম্মদ আলী নেওয়াজ খান। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন দক্ষিণ জেলার সভাপতি বাবু অজিত কুমার দাশ, এডভোকেট কামরুন নাহার, এডভোকেট কামলা খানম রুপা, আফরোজ বেগম জলি, নাজিম উদ্দিন চৌধুরী এ্যানেল, মিটুল দাশ গুপ্ত, এডভোকেট ফাহিমা শারমিন, প্রভাষক সালমা আহসান, এডভোকেট পাপড়ি সুলতানা চৌধুরী, আবদুল আহাদ, মাস্টার আবুল হোসেন, সাংবাদিক নজরুল ইসলাম, ইমতিয়াজ ফারুকী, অলক দাশ, আরশাদ হোসাইন, মো. জাবেদ প্রমূখ। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন আগামীতে সকল দলের অংশগ্রহণে অবাধ-সুষ্ঠ-নিরপেক্ষ্য নির্বাচন করতে আগ্রহী সরকার। এই উপলক্ষে সবধরণের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন আইন প্রণয়নের পর সরকার চার্জ কমিটির মাধ্যমে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করেছে। বক্তারা আরো বলেন নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের ভূমিকা অপরিসীম। তারাই খুব নিকটবর্তী থেকে নির্বাচনকালীন নিয়ম অনিয়মসহ সকল ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে পারেন। সেই সুবাধে পর্যবেক্ষকরা যাতে কোনভাবে হয়রানির শিকার না হয় সে লক্ষে সকলকে সচেতন হতে হবে এবং পর্যবেক্ষকরা যাতে চাপমুক্ত এবং স্বাধীনভাবে নির্বাচন তদারকি করতে পারেন সেই উপলক্ষে কাজ করতে হবে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn