মঙ্গলবার - ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মঙ্গলবার - ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

ফ্রী বিদর্শন ভাবনা কোর্স ১০(দশ) দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলো -২০২৩

“বিদর্শনই দু:খ মুক্তির একমাত্র পথ” ফ্রী বিদর্শন ভাবনা কোর্স ১০(দশ) দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলো -২০২৩ গত ২২ ফেব্রুয়ারী বুধবার থেকে ০৩ মার্চ শুক্রবার পর্যন্ত অনুষ্ঠিত । জীবনকে বিশেষভাবে জানা বা দেখার নামই বিদর্শন। জীবনের দর্শন ধারাকে বিশেষ, বিশেষভাবে বিশ্লেষিত অবস্থায় নির্ধারণ করতে পারার নামই বিদর্শন। এ বিদর্শন ভাবনা অনুশীলনের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ভাবে মানুষ নিজ ধ্যানের স্বরূপ উপলদ্ধি করতে পারে। গায়ে বা কাপড়ে ময়লা লাগলে আমরা তাড়াতাড়ি পরিষ্কার করে নিই। কিন্তু আমরা মনের পাপ বা ময়লা পরিষ্কার করার জন্য কি কোন চেষ্ঠা করছি? তাই মনের ময়লা বা পাপ পরিষ্কার করার জন্য বিদর্শন ভাবনা অনুশীলন করা সকল মানুষের জীবনে খুবই প্রয়োজন। নিজকে জানার জন্য আত্মদর্শনে ধ্যান অনুশীলনের কোনো বিকল্প নেই। তাই বলা হয় ধ্যান ছাড়া জ্ঞান হয় না, জ্ঞান না হলে প্রজ্ঞা হয় না। প্রজ্ঞা ছাড়া দুঃখ মুক্তি হয় না। বিদর্শন অনুশীলনকারী ধর্মপ্রাণ বৌদ্ধ নর-নারী ও পুণ্যার্থীবৃন্দগণ ভাবনায় অংশঘগ্রহণ করে জীবনকে সুন্দর ও স্বার্থক করেছেন। এ বিদর্শন ভাবনাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলাস্থ মহামান্য সপ্তম সংঘরাজ সদ্ধর্মকীর অভয়তিষ্য মহাস্থবির, স্বর্ণপদক প্রাপ্ত সাহিত্যি বিনোধ ধর্মজ্যোতি মহাস্থবির ও বিদর্শন কোবিদ ধর্মবিহারী মহাস্থবিরের চারনভূমি ও বহু সংঘমনীষার জন্মতীর্থ ঐতিহ্যবাহী সাতবাড়িয়া(দেওয়ানজী পাড়া) গ্রামে, সাতবাড়িয়া শান্তি বিহার কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে বিদর্শন ভাবনা গত ২২ ফেব্রুয়ারী থেকে ৩ মার্চ পর্যীন্তত ১০ দিন ব্যাপী কোর্স অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয় । উক্ত ভাবনা কোর্স পরিচালনা করেছেন বোধিপাল আন্তর্জাতিক বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের পরিচালক ভদন্ত আশিন খেমিকা থেরো ও লাবলী বড়ুয়া মহোদয়। সার্খ তত্বাবধানে ছিলেন সাতবাড়িয়া শান্তি বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত তিষ্যমিত্র ভিক্ষু ও শান্তি বিহার কল্যাণ পরিষদ, যুব সংগঠন-‘শান্তি ও গ্রামবাসীবৃন্দ।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn